ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তি ও জাতীয় পরিচয়পত্র প্রণয়ন

Category: Governmental Written by Md. Rafiqul Islam Hits: 7725

-    সংবিধানের ৬৫ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী একক নির্বাচনী এলাকাসমূহ হতে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে আইনানুযায়ী নির্বাচিত সংসদ সদস্য সমন্বয়ে সংসদ গঠিত হবে।
-    সংবিধানের ১২১ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রত্যেক আঞ্চলিক নির্বাচনী এলাকার একটি করে ভোটার তালিকা থাকবে।
-    প্রবাসী দ্বৈত নাগরিকদের ভোটার করার বিষয়ে এই আইনের একটি সংশোধনী প্রস্তাব বর্তমানে সংসদে বিবেচনাধীন আছে।
সংবিধানের ১২২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী উক্ত ভোটার তালিকার ভিত্তিতে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ভোটার হওয়ার যোগ্যতা
-    বাংলাদেশের নাগরিক
-    বয়স ১৮ বছরের কম নয়
-    কোন আদালত কর্তৃক অপ্রকৃতিস্থ ঘোষিত হননি
-    নির্বাচনী এলাকার অধিবাসি বা আইনের দ্বারা অধিবাসি
ভোটার তালিকা আইন – ২০০৯ ও জাতীয় পরিচয়পত্র আইন – ২০০৯
-    মূল আইনটি ২০০৭ সালে ভোটার তালিকা অধ্যাদেশ হিসেবে কার্যকর হয়। পরে ২০০৯ সালে সংসদ কর্তৃক অধ্যাদেশটিকে আইনে রূপান্তর করা হয়েছে।
-    এই আইনের অধীনে ২০০৮ সালে কমিশন বিধিমালা প্রণয়ন করে যা ভোটার তালিকা আইন, ২০০৯ অধীনে প্রণীত মর্মে বিবেচিত।
-    জাতীয় পরিচয়পত্র আইনের অধীনে প্রত্যেক ভোটারকে একটি জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদান করা হবে।

ভোটার তালিকা আইনের মূল বিষয়বস্তু
-    মুখবন্ধ, সংক্ষিপ্ত শিরোনাম এবং সংগায় ভোটার এলাকা, রেজিস্ট্রেশন অফিসার ইত্যাদি সংগায়িত করা হয়েছে।
-    এই আইনের অধীনে যে কোন ব্যক্তি বা সংস্থা কমিশনকে সহায়তা করতে বাধ্য।
-    ভোটার তালিকার (ছবি ও বায়োম্যাট্রিক্সসসহ ডাটাবেইস) প্রণয়ন ও সংরক্ষণ সংক্রান্ত বিষয়ে কমিশন পদ্ধতি নির্ধারণ করবেন।
-    রেজিস্ট্রেশন অফিসার ইত্যাদি নিয়োগের মাধ্যমে ভোটার তালিকার কপি চূড়ান্ত করা হবে।
-    ভোটার তালিকা প্রনয়ন ও প্রকাশ সংক্রান্ত বিস্তারিত পদ্ধতি বর্ণনা করা আছে।
-    অধিবাসী বলতে কাকে কাকে বুঝাবে তার বর্ণনা দেয়া হয়েছে।
-    কোন ব্যক্তি একাধিক এলাকায় বা একই এলাকায় একাধিকবার ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন না।
-    ভোটার তালিকা সংশোধন প্রক্রিয়ার বর্ণনা দেয়া আছে
-    বিভিন্ন সংস্থাকে সংগৃহীত তথ্য ব্যবহারের সুযোগ দেয়া হবে
-    ভোটার তালিকা হতে নাম কর্তন করার সুযোগ রয়েছে
-    ভোটার তালিকার কোন ভুল-ত্রুটির জন্য ভোটার তালিকা অবৈধ হবে না।
-    ভোটার তালিকায় কোন নাম অন্তর্ভুক্তি বা উহা হতে বিলোপন ইত্যাদির ক্ষমতা কমিশনকে প্রদান করা আছে।
-    বিধি প্রণয়নের ক্ষমতা কমিশনের নিকট অর্পন করা হয়েছে।
-    ভোটার তালিকা সংক্রান্ত বিষয়ে গৃহীত পদক্ষেপ আদালতের এখতিয়ার সীমিত করা হয়েছে।
-    ভোটার তালিকার বিষয়ে মিথ্যা তথ্য দেয়া দন্ডনীয় অপরাধ।
-    ভোটার তালিকা প্রণয়নে প্রতিবন্ধকতার জন্য অনধিক ১ বছর কারাদন্ড বা ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয়দন্ড প্রদান করা যাবে।
-    ভোটার তালিকা প্রণয়ন ইত্যাদি সম্পর্কে দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তির দায়িত্বে অবহেলা দন্ডনীয় অপরাধ।
-    ইচ্ছাকৃত ক্রুটির জন্য অনধিক ৬ মাস কারাদন্ড বা অনধিক ২ হাজার টাকা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ড প্রদানের বিধান রয়েছে।
-    দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলার ক্ষেত্রে কমিশনের অনুমোদনের প্রয়োজন হবে।
-    বিশেষ ক্ষমতা বলে কমিশন বিশেষ এলাকার জন্য বিশেষ ব্যবস্থায় ভোটার তালিকা প্রণয়ন করতে পারবে।
-    রহিতকরণ ও হেফাজত-এর অধীনে ভোটার তালিকা অধ্যাদেশ, ১৯৮২-এর কার্যক্রম রহিত এবং উক্ত আইনের কৃতকর্ম বর্তমান আইনে গৃহীত মর্মে স্বীকৃতি প্রদান করা হয়েছে।

ভোটার তালিকা বিধিমালা – ২০০৮
-    বিধিমালায় সংক্ষিপ্ত শিরোনাম ও প্রয়োজনীয় সংগা দেয়া হয়েছে।
-    ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও ভোটার তালিকা প্রণয়নের জন্য অস্থায়ী সাংগঠনিক কাঠামো নির্ধারণ করা হয়েছে।
-    ভোটার রেজিস্ট্রেশন ও ভোটার তালিকা প্রণয়ন সংক্রান্ত জনবল কারা হবেন, কিভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত হবেন তার বিস্তারিত বর্ণনা রয়েছে।
-    ভোটার রেজিস্ট্রেশন কাজে নিয়োজিত জনবলের অধিক্ষেত্র ও দায়িত্ব নির্ধারণ করা হয়েছে।
-    ভোটার রেজিস্ট্রেশন কাজে নিয়োজিত জনবলকে কি ধরণের প্রশিক্ষণ দিতে হবে, কিভাবে দিতে হবে তার বর্ণনা দেয়া হয়েছে।
-    রেজিস্ট্রেশন মালামাল ও সামগ্রী কখন, কাকে, কিভাবে দিতে হবে তা বলা হয়েছে।
-    প্রশাসনিক এলাকাভিত্তিক সমন্বয় কমিটি গঠণ করতে হবে। বিধিমালায় কমিটির কাঠামো দেয়া হয়েছে।
-    তত্ত্বাবধান ও তদারকি দল কিভাবে গঠণ হবে এবং দলের কার্যপরিধি নির্ধারণ করা হয়েছে।
-    ভোটার তালিকা নির্ধারণ ও কোড নম্বর প্রদানের পদ্ধতি বর্ণনা দেয়া হয়েছে।
-    রেজিস্ট্রেশন সময়সূচি ঘোষণা করতে হবে এতে তথ্য সংগ্রহ ও সমাপ্তি এবং ডাটা এন্ট্রির কাজ শুরু ও সমাপ্তির দিন উল্লেখ করতে হবে।
-    ভোটার তালিকা বাংলায়, ফরম-১ এ প্রণীত হবে এবং কমিশনের নির্দেশ মোতাবেক বিভক্ত করতে হবে।
-    ফরম-২ এ তথ্য সংগ্রহ করে বিধি-১৬ মোতাবেক ছবি, আঙ্গুলের ছাপ ও স্বাক্ষর ডিজিটাল পদ্ধতিতে কম্পিউটারে সংরক্ষণ করতে হবে।
-    ১৫নং বিধিতে সরকারী কর্মচারীদের জন্য বিশেষ বিধান রাখা হয়েছে। নিবন্ধনের জন্য ফরম-৩ এ আবেদন করতে হবে।
-    ১৬নং বিধিতে রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতির বিস্তারিত বর্ণনা দেয়া হয়েছে।
-    ১৭নং বিধিতে কেন্দ্রে আগমনে অপরাগ ব্যক্তিদের জন্য নিবন্ধনের জন্য তথ্য সংগ্রহের বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে।
-    জেলখানায় বা অন্য জায়গায় হেফাজতে থাকা ব্যক্তিদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া ১৮নং বিধিতে উল্লেখ আছে।
-    বিধি – ১৯, প্রাথমিক প্রকাশনা পদ্ধতির বর্ণনা;
-    বিধি – ২০, দাবী ও আপত্তি দাখিলের সময়সীমা সংক্রান্ত;
-    বিধি – ২২, সংশোধনী কর্তৃপক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়ার বর্ণনা;
-    বিধি – ২৩, দাবী আপত্তি ও সংশোধনী দাখিলের পদ্ধতির বর্ণনা;
-    বিধি – ২৪, দাবী আপত্তি ও সংশোধন নাকচের পদ্ধতি;
-    বিধি – ২৫, আরও কর্তৃক নাম অন্তর্ভুক্তির দরখাস্ত;
-    বিধি – ২৬, দাবী, আপত্তি ও সংশোধনী, রেজিস্ট্রার ফরম-১০;
-    বিধি – ২৭, দাবী ও আপত্তি সমূহের নোটিশ;
-    বিধি – ২৮, নোটিশ জারীর পদ্ধতি;
-    বিধি – ২৯, দাবী, আপত্তি ও সংশোধনীর জন্য তদন্ত পদ্ধতি;
-    বিধি – ৩০, খসড়া ভোটার তালিকা সংশোধন প্রক্রিয়া;
-    বিধি – ৩১, চূড়ান্ত প্রকাশনা;
-    বিধি – ৩২, ভোটার তালিকা সংশোধন প্রক্রিয়া;
-    বিধি – ৩৩, ভোটার তালিকা হালনাগাদকরণ প্রক্রিয়া;
-    বিধি – ৩৪, নতুন ভোটার তালিকা প্রণয়নকালে করণীয়;
-    বিধি – ৩৫, ভোটার রেজিস্ট্রেশন;
-    বিধি – ৩৬, ভোটার তালিকার ব্যবহারের বর্ণনা। ছবিসহ ভোটার তালিকা কমিশন ব্যতিরেকে কেউ ব্যবহার করতে পারবেন না;
-    বিধি – ৩৭, রেকর্ড হেফাজত ও সংরক্ষণ পদ্ধতি;
-    বিধি – ৩৮, আগের বিধির কার্যকারিতা রহিতকরণ এবং কর্তৃকার্য হেফাজতকরণ।

এক নজরে ভোটার তালিকা ফরমসমূহ
ফরম - ১    ভোটার তালিকা: পূর্ণাংগ ঠিকানা, ভোটার নম্বর, ক্রমিক নম্বর, নাম ও ছবি, পিতা/স্বামীর নাম, পেশা, জন্মতারিখ, ঠিকানা;
ফরম - ২    নিবন্ধন ফরম: ২৯টি ফিল্ড রয়েছে;
ফরম - ৩    সরকারী কর্মচারী ও পোষ্যদের জন্য ফরম;
ফরম - ৪    রেজিস্ট্রার;
ফরম - ৫    ভোটার স্লিপ;
ফরম - ৬    নাম অন্তর্ভুক্তির দাবী [বিধি ২১ ও ২৩(৪) ও ২৭(ক)];
ফরম - ৭    নাম অন্তর্ভুক্তির বিরুদ্ধে আপত্তি;
ফরম - ৮    ভোটার তালিকার বিবরণ সংশোধন [বিধি ২১ ও ২৩(৬)];
ফরম - ৯    প্রাথমিক প্রকাশনার পর এক ভোটার এলাকা হতে অন্য ভোটার এলাকায় নাম স্থানান্তর;
ফরম - ১০    রেজিস্ট্রার;
ফরম - ১১    ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্তির আবেদন;
ফরম - ১২     ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত নাম কর্তনের আবেদন;
ফরম - ১৩     এক ভোটার এলাকা হতে অন্য ভোটার এলাকায় নাম স্থানান্তরের আবেদন;
ফরম - ১৪     এক নির্বাচনী এলাকা হতে অন্য নির্বাচনী এলাকায় নাম স্থানান্তরের আবেদন।